//সপুষ্পক উদ্ভিদ কাকে বলে? সপুষ্পক উদ্ভিদ কত প্রকার ও কি কি?
সপুষ্পক উদ্ভিদ কাকে বলে? সপুষ্পক উদ্ভিদ কত প্রকার ও কি কি? Save

সপুষ্পক উদ্ভিদ কাকে বলে? সপুষ্পক উদ্ভিদ কত প্রকার ও কি কি?

যেসকল উদ্ভিদের ফুল ও ফল হয় এবং বীজ দ্বারা বংশবিস্তার করে তাকে সপুষ্পক উদ্ভিদ বলে। যেমন: গোলাপ, জবা, আম, শাপলা হলো সপুষ্পক উদ্ভিদ

সপুষ্পক উদ্ভিদের বৈশিষ্ট্যঃ

  1. এদের ফুল ও ফল হয়।
  2. মূল, কাণ্ড ও পাতা রয়েছে।
  3. সপুষ্পক উদ্ভিদ শাখা-প্রশাখায় বিভক্ত থাকে।
  4. এরা আকারে বড়, শক্ত ও মজবুত হয়।
  5. নিজের খাদ্য নিজেই তৈরি করতে পারে।
  6. এদের মূল মাটির অনেক গভীরে যায়।

সপুষ্পক উদ্ভিদ দুই প্রকারঃ

  1. নগ্নবীজী
  2. আবৃতবীজী/গুপ্তবীজী

১. নগ্নবীজীঃ
যেসব উদ্ভিদের ফুল ও বীজ হয় কিন্তু তাদের ফল হয় না তাদেরকে নগ্নবীজী উদ্ভিদ(Gymnospermae) বলে। যেমন- সাইকাস, পাইনাস ও নিটাম। নগ্নবীজী উদ্ভিদের গর্ভাশয় নেই তাই তাদের ফল উৎপন্ন হয় না। দুইটি গ্রিক শব্দ Gymnos ও spermos থেকে Gymnospermae শব্দটি উৎপন্ন হয়েছে।

নগ্নবীজী উদ্ভিদের বৈশিষ্ট:

  • এ উদ্ভিদের ফুল ও ফল হয়, কিন্তু এদের ফল হয় না।
  • ফুলে ডিম্বাশয় থাকে না, যার ফলে বীজ নগ্ন থাকে।
  • গর্ভাশয় না থাকার ফলে এদর ফল সৃষ্টি হয়না।
  • এরা সকলেই বায়ু পরাগী।
  • ডিম্বক পরিণত হয়ে বীজ উৎপন্ন করে।




২. আবৃতবীজীঃ
যেসকল উদ্ভিদের ফূল, ফল ও বীজ হয় এবং বীজগুলো ফলের মধ্যে আবৃত থাকে তাদেরকে আবৃতবীজী উদ্ভিদ বলে। যেমন: ধান, গম, ভুট্টা, আলু, আখ, বীট, চীনাবাদাম ইত্যাদি।

আবৃতবীজী উদ্ভিদের বৈশিষ্ট্যঃ

  • এদের ফুল, ফল ও বীজ হয়।
  • বীজগুলি ফলের ভিতরে আবৃত অবস্থায় থাকে।
  • এ উদ্ভিদগুলির দ্বিনিষেক ঘটে।
  • এদের ডিম্বকগুলো ডিম্বাশয়ে সজ্জিত থাকে।

সপুষ্পক উদ্ভিদের ছবি

সপুষ্পক উদ্ভিদের ছবি
  • Save





সপুষ্পক উদ্ভিদের ছবি
  • Save

সপুষ্পক উদ্ভিদ কত প্রকার ও কি কি?
  • Save





সপুষ্পক উদ্ভিদের বৈশিষ্ট্য
  • Save