//ণ ব্যবহারের নিয়ম? ণ দিয়ে শব্দ গঠন কর?
ণ ব্যবহারের নিয়ম? ণ দিয়ে শব্দ গঠন কর? Save

ণ ব্যবহারের নিয়ম? ণ দিয়ে শব্দ গঠন কর?

ণ ব্যবহারের নিয়ম সমূহ:

১. ঋ, র, ষ এর পরে মূর্ধন্য(ণ) হয়। যেমন: ঋণ, তৃণ, ঘৃণা, বরণ, বর্ণ, রণ, ভূষণ ইত্যাদি। কয়েকটি বাক্য: তৃণবন স্বরঞ্জিত হয় মুক্তিমায়, সমাজের খারাপ লোকদের সকলে ঘৃণা করে, ঋণ শোধ করতে করতে টাকা শেষ চিকিৎসার খরচ কীভাবে চলবে? ইত্যাদি।

২. ট বর্গীয় ধ্বনির(ট, ঠ, ড, ঢ, ণ) পূর্বের দন্ত্য ন সর্বধা ণ হয়। যেমন: ঠাণ্ডা, কণ্ঠ, ঘণ্টা, কাণ্ড ইত্যাদি। কয়েকটি বাক্য: আবহাওয়া পরিবর্তনের সময় হালকা ঠাণ্ডা জ্বর হতেই পারে, অপহরণের আট ঘণ্টা পর উদ্ধার, এ কী কাণ্ড! তুমি এটা করতে পারলে? ইত্যাদি।

৩. ঋ, র, ষ এর পরে স্বরধ্বনি য, ব, য়, হ, ং এবং ক বর্গীয়(ক, খ, গ, ঘ, ঙ) ও প বর্গীয় (প, ফ, ব, ভ, ম) ধ্বনি থাকলে তার পরবর্তী ন মূর্ধন্য “ণ” হয়। যেমন: গ্রহণ, হরিণ, কৃপণ, লক্ষণ, নির্বাণ ইত্যাদি। কয়েকটি বাক্য: আমার পক্ষে আপনার প্রস্তাব গ্রহণ করা সম্ভব নয়, কৃপণ ব্যক্তিদের কেউ পছন্দ করে না ইত্যাদি।

৪. প্র, পরা, পরি, নির্ এই চারটি উপসর্গের পরের দন্ত্য ‘ন’ মূর্ধন্য ‘ণ’ হবে। যেমন: প্রণালী, প্রণব, প্রণোদনা, পরিণয়, পরিণাম, প্রণাম, নির্ণয় ইত্যাদি। কিয়েকটি বাক্য: মিথ্যার পরিণাম খুবই ভয়াবহ, এই সমস্যার সমাধান কেউ নির্ণয় করতে পারলো না, সকল প্রণোদণা থেকে বিরত থাকুন, ইত্যাদি।

৫. কিছু শব্দে স্বভাবতই ণ হয়। যেমন: নিপুণ, কল্যাণ, লাবণ্য, মণ, মাণিক্য, গুণ, বাণ, কল্যাণ, স্থাণু, পাণি, বণিক, পণ্য, বাণিজ্য, চাণক্য, গণ, আপণ, গণিকা, ফণী, কফণি, গণনা, মাণিক্য, লবণ, মণি, পুণ্য, গৌণ, নিক্কণ, পিণাক, বিপণি, কণিকা, বীণা, ফণী ইত্যাদি।