//অফ পেজ এসইও কি?Off Page SEO কিভাবে করবেন?
অফ পেজ এসইও কি?Off Page SEO কিভাবে করবেন? Save

অফ পেজ এসইও কি?Off Page SEO কিভাবে করবেন?

অফ পেজ এসইও অনুসরণ করলে আপনার ওয়েবসাইট র্যাঙ্কিং করবে গুগলের প্রথম পৃষ্ঠায়। অর্থাৎ ট্রাফিক বাড়ানোর একটি বড় উপায় হলো অফ পেজ এসইও, যার মাধ্যমে আপনার ওয়েবপৃষ্ঠাগুলোকে সার্চ ইঞ্জিন ফলাফলের প্রথম পৃষ্ঠাতে এনে প্রচুর ট্রাফিক পেতে পারেন।

আসুন আগে জেনে নেই এসইও কি? এসইও কত প্রকার ও কি কি?

এসইও বা Search Engine Optimization হলো এমন একটি মাধ্যম যাকে ব্যবহার করে আপনি আপনার ওয়েবসাইটে ফ্রি বা বিনামূল্যে প্রচুর পরিমাণে ট্রাফিক পেতে পারেন। যদি আপনি সঠিকভাবে এসইও করেন তাহলে গুগলে আপনার টপিক নিয়ে কেউ সার্চ করলে আপনার ওয়েবসাইটি সবার আগে আসবে। অর্থাৎ আপনি অর্গানিকভাবে প্রচুর ট্রাফিক পাচ্ছেন কোনো টাকা খরচ ছাড়াই।

সাধারণত এসইও দুই ধরনের:

  1. অন পেজ এসইও/On page SEO
  2. অফ পেজ এসইও/Off-page SEO

অন পেজ এসইও কি/What is On Page SEO?

অন পেজ এসইও হলো আপনি আপনার ওয়েবসাইটের এডমিন পেনেলে সরাসরি যা করেন; যেমন: শিরোনাম, ট্যাগ, কীওয়ার্ড, অভ্যন্তরীণ লিঙ্ক, ALT নেইম,চিত্র/ছবি অপ্টিমাইজেশন এবং আরও অন্যান্য কাজগুলো নিয়েই অন পেজ এসইও হয়।

আপনি যখন পোস্ট করবেন তখন আপনার অন পেজ এসইও এর সর্বোচ্চ ব্যবহার করা হয়, যেমন: পোস্টের টাইটেল, মেটা ট্যাগ, স্লাগ, হেডিংস, প্রেরেগরাফ, কীওয়ার্ড, ছবির সঠিক সাইজ ও ALT নাম দেওয়া ইত্যাদি।




আসুন আমাদের মূল টপিক নিয়ে আলোচনা করি?

অফ পেজ এসইও কি/What is Off Page SEO?

এককথায় ওয়েবসাইটের পৃষ্ঠার র‌্যাঙ্ক বাড়ানোর জন্য এডমিন প্যানেলের বা ওয়েবসাইটের বাইরে যে কাজগুলো করা হয় সেসবের সমন্বয়কে অফ-পেজ-এসইও বলে। ওয়েবসাইটের বাইরে যে কাজগুলো সাধারনত করা হয় তা হলো; লিঙ্ক বিল্ডিং, সোশ্যাল মিডিয়া, ফোরাম পোস্টিং, প্রোফাইল লিঙ্ক বিল্ডিং, গেস্ট পোস্টিং ইত্যাদি।

Google বা সার্চ ইঞ্জিনগুলিতে র‌্যাঙ্কিং পেতে অফ পেজ এসইও খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। আর অফ-পেজ এসইও এর সত্যিই একটি বড় বিষয় হলো উচ্চমানের ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করা। “Off-Page SEO” লিঙ্ক বিল্ডিংয়ের সাথে জড়িত। আপনি যত বেশি লিঙ্ক বিল্ডিং করবেন আপনার গুগল রেঙ্কিং পারফরম্যান্স তত বেশি হাই থাকবে। তাছাড়া আপনার অবেসাইটের ডোমেন ও পেজ অথরিটি বৃদ্ধি করার একমাত্র উপায় হলো লিঙ্ক বিল্ডিং।

আমার নিজস্ব মতামত হলো; অফ পেজ এসইও যেকোনো ওয়েবসাইটের ট্রাফিক বৃদ্ধির জন্য একটি বড় অবদান রাখে এবং আপনার ওয়েবসাইটের অথরিটি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। আপনি যদি সঠিকভাবে কোনো প্রকার স্প্যাম বিহীন লিঙ্ক বিল্ডিং করেন তাহলে আপনার ওয়েবসাইটের পারফরম্যান্স ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পাবে এবং অথরিটি সাইট হিসাবে গুগলের কাছে পরিচিতি পাবে।

ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করা ওয়েবসাইটের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। ব্যাকলিঙ্ক হলো অফ পেজ এসইও এর একটি মূল অংশ। ব্যাকলিঙ্ক আবার দুই ধরনের হয়ে থাকে।




  • dofollow backlinks–যখন অন্য কোনও ওয়েবসাইট আপনার সাথে একটি স্ট্যান্ডার্ড (ডফোলো) লিঙ্কটি যুক্ত করে, এটি সরাসরি সার্চ ইঞ্জিনের র‌্যাঙ্কিংকে প্রভাবিত করতে পারে। অর্থাৎ আপনার ওয়েবসাইটকে রেফার করে বা অথরিটি প্রদান করে।
  • nofollow backlinks–একটি nofollow লিঙ্কটি এমন লিঙ্ক যা এর এইচটিএমএল কোডে একটি rel = “nofollow” বৈশিষ্ট্য ধারণ করে। এই বৈশিষ্ট্যটি অনুসন্ধান ইঞ্জিনগুলিকে লিঙ্কিং পৃষ্ঠা থেকে গন্তব্য পৃষ্ঠায় Authority প্রদান করে না।

উদাহরণ স্বরুপ:

ধরুন আপনি আপনার ওয়েবসাইটে একটি পোস্ট করেছেন, আপনার পোস্টের কীওয়ার্ড হলো Earn Money. অন্যান্য কিছু  ওয়েবসাইট আপনার এই পোস্টিকে তাদের পোস্টে লিঙ্ক করেছে এবং তাদের ট্রাফিকগুলোকে আপনার ওয়েবসাইটে পাঠাচ্ছে। অন্যান্য ওয়েবসাইটগুলো যে আপনাকে লিঙ্ক করিয়েছে এটিই লিঙ্ক বিল্ডিং যা অফ পেজ এসইও হিসেবে কাজ করে।
বি:দ্র: কোনো ওয়েবসাইট সহজেই কাউকে এমনে এমনে লিঙ্ক দেয় না। কিছু কিছু ক্ষেত্রে আপনি নিজে লিঙ্ক তৈরি করতে হবে, না হয় লিঙ্ক ক্রয় করতে হবে। বর্তমানে অনেক ওয়েবসাইট লিঙ্ক বিক্রি করে নির্দিষ্ঠ টাকা বিনিময়ে।

Off Page SEO/ অফ পেজ এসইও কিভাবে করবেন?

. backlink তৈরি করুন:

আপনার ওয়েব সাইটের জন্য হাই অথরিটি সাইট থেকে backlink তৈরি করার চেষ্টা করুন। যত বেশি ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করবেন তত বেশি র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকবেন।

কিভাবে backlink তৈরি করবেন?

আসুন একটি খুবই সহজ উপায় বলি, কমেন্ট ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করুন। বিভিন্ন ওয়েবসাইটে নিচের ছবিটির মতো দেখতে পাবেন কমেন্ট করার জন্য অপশন থাকে;

অফ পেজ এসইও কি?Off Page SEO কিভাবে করবেন?
  • Save

উপরের ছবিটিতে দেখতে পাচ্ছি যে, কমেন্ট লিখার জন্য একটি টেক্সট অপশান এবং নিচের দিকে ইমেইল, নেইম এবং ওয়েবসাইট দেওয়া আছে। আপনি কমেন্ট করার সময় আপনার ওয়েবসাইটের নামটি ওয়েবসাইট অপশনে দিয়ে ভালো কিছু লেখা লিখে সাবমিট করে দিবেন তাহলে আপনার কমেন্ট এপ্রুভ করার সম্ভবনা থাকবে। এভাবেই কমেন্ট করে ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করবেন।




২. Guest Posting:

বর্তমান সময়ে Guest Posting খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। Guest Posting হলো অন্য কোনো ওয়েবসাইটের জন্য আর্টিকেল লিখে নিজের ওয়েবাইটের জন্য লিঙ্ক বিল্ডিং করা। Guest Posting এতই জনপ্রিয় হয়েছে যে এখন হাই অথরিটি ওয়েবসাইটে পোস্ট করতে হলে অর্থ প্রদান করতে হয়। নির্দিষ্ট পরিমান অর্থের বিনিময়ে আপনি অন্য ওয়েবসাইটে গেস্ট পোস্ট করে লিঙ্ক বিল্ডিং করতে পারেন।

গেস্ট পোস্টিং এর মাধ্যমে আপনি আপনার টপিকের কীওয়ার্ড অনুযায়ী অন্যান্য ওয়েবসাইটে পোস্ট করে আপনার ওয়েবসাইটের পোস্টের লিঙ্ক বিল্ডিং করতে পারবেন।

গেস্ট পোস্ট করার জন্য আপনাকে খোঁজে বের করতে হবে কোন ওয়েবসাইটগুলো গেস্ট পোস্ট এক্সেপ্ট করে। আপনি গুগলে সার্চ করে অনেক পোস্ট পাবেন গেস্ট পোস্ট লিস্ট। আপনি আপনার কীওয়ার্ড অনুযায়ী ওয়েবসাইটের লিস্ট তৈরি করে নিন এবং ভালো মানের কিছু আর্টিকেল রেখে রুখুন। এভাবেই গেস্ট পোস্ট করে আপনার ওয়েবসাইটের ডোমেন ও পেজ অথরিটি বৃদ্ধি করুন।

৩. Social Media:

অনেকেই মনে করে অফ পেজ এসইও মানে শুধু লিঙ্ক বিল্ডিং, যদিও লিঙ্ক বিল্ডিং অনেক গুরত্বপূর্ণ বিষয়, তবে আরো ট্রাফিক পাওয়ার জন্য সুশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারও খুব গুরুত্বপূর্ণ।

জনপ্রিয় কিছু সুশ্যাল মিডিয়ার নাম:

  • Facebook
  • Tumblr
  • Instagram
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Reddit
  • YouTube
  • Xing




৪.অফ পেজ এসইও এ– Forums:

অফ-পেইজ এসইও কৌশল হিসাবে ফোরাম সাইটগুলোও হতে পারে লিঙ্ক বিল্ডিং এর বড় একটি অংশ। আপনি আপনার টপিক নিয়ে ফোরামগুলিতে প্রশ্নের উত্তর দিয়েও আপনার ওয়েবসাইটে ট্রাফিক পেতে পারেন।

জনপ্রিয় কিছু ফোরাম সাইট:

৫. Image Submission site:

বর্তমানে অনেক জনপ্রিয় কিছু Image Submission সাইট রয়েছে যেগুলোতে আপনি Image আপলোড করে ভিজিটর পেতে পারেন। একটি বড় উদাহরণ হলো Pinterest.

Pinterest এমন একটি জনপ্রিয় সাইট যেখানে মানুষ ছবি আপলোড করে তাদের ওয়েবসাইটে ভিজিটর নিয়ে যায়। আপনিও খুব সহজেই আপনার ওয়েবসাইটের পোস্টগুলির ছবি তৈরি করে Pinterest এ  আপলোড করে প্রচুর পরিমানে ভিজিটর পেতে পারবেন।

আরও কিছু ছবি সাবমিশন সাইট হলো:

  • Instagram
  • Imgur
  • Flickr
  • Shutterfly
  • Photobucket

এগুলো ছাড়াও আরও অনেক ফোরাম সাইট রয়েছে। আপনি আপনার নিশ অনুযায়ী ফোরাম সাইট খোঁজে ওখানে আপনার ওয়েবসাইটের পোস্টগুলি শেয়ার করতে পারেন। ফোরাম এর পোস্ট শেয়ার করেও অনেক ট্রাফিক পাওয়া সম্ভব।




6.অফ পেজ এসইও- Social Bookmarking:

আপনার ওয়েবসাইট প্রচার করার জন্য সোশ্যাল বুকমার্কিং সাইটগুলি অন্যতম সেরা প্ল্যাটফর্ম। আপনি যখন জনপ্রিয় ওয়েব বুকমার্কিং ওয়েবসাইটগুলিতে আপনার ওয়েবপৃষ্ঠা বা ব্লগ পোস্ট বুকমার্ক করেন তখন আপনি আপনার ওয়েবপৃষ্ঠা বা ব্লগে প্রচুর পরিমাণে  ট্র্যাফিক অর্জন করেন।

বুকমার্কিং সাইটগুলো আপনাকে লিঙ্ক শেয়ার করার সুযোগ দিয়ে থাকে, যেখানে আপনি আপনার ওয়েবপৃ্ষ্টা শেয়ার করে আপনার ওয়েসাইটে ট্রাফিক পেতে পারেন। বেশিরভাগ সামাজিক বুকমার্কিং সাইট আপনাকে শপিং, প্রযুক্তি এবং রাজনীতি থেকে শুরু করে ব্লগিং, সংবাদ এবং স্পোর্টস সম্পর্কিত বিষয়গুলিতে বুকমার্ক করার সুযোগ দেয়।

জনপ্রিয়বুকমার্কিং সাইটগুলো:

  1. http://digg.com
  2. Pocket
  3. Mix
  4. Scoop.it
  5. Medium
  6. Flipboard
  7. http://slashdot.org
  8. http://diigo.com

৭. Blog Directory Submission:

ডিরেক্টরি জমা/সাবমিশন দেওয়ার অর্থ একটি নির্দিষ্ট বিভাগের অধীনে ডিরেক্টরিতে আপনার ওয়েবসাইটের ইউআরএল এবং তার বিবরণ ওয়েবে জমা দেওয়া। ডিরেক্টরি জমা আপনার লিংক বিল্ডিং বাড়ানোর জন্য কার্যকর সাইট-র এসইও কৌশল।

আপনি আপনার নীশ অনুযায়ী ডিরেক্টরি বাছাই করুন এবং আপনার ওয়েবপৃ্ষ্টাগুলি শেয়ার করুন। এতে আপনার বাড়তি ট্রাফিকও বাড়বে আবার এসইও হিসাবেও কাজ করবে। নতুন ব্লগারদের জন্য ডিরেক্টরি তালিকা করা গুরুত্বপূর্ণ, কারণ আপনি আপনার ওয়েবসাইটের র‌্যাঙ্কিং বাড়ানোর বড় একটি সুযোগ।

জনপ্রিয় ডিরেক্টরি সাইটগুলি:

  1. https://directory.entireweb.com/
  2. https://www.sitepromotiondirectory.com/
  3. http://www.a1webdirectory.org/
  4. Viesearch.com
  5. LinkCentre.com
  6. HighRankDirectory.com
  7. SitesWebDirectory.com
  8. SoMuch.com




৮. অফ পেজ এসইও–Article Submission:

আর্টিকেল সাবমিশন একটি খুব জনপ্রিয় অফ-পেজ এসইও কৌশল যা আপনি আপনার নীশ সম্পর্কিত একটি নিবন্ধ লিখে তৃতীয় পক্ষের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে ব্যাকলিঙ্ক নিতে পারেন। বেশিরভাগ সাইটগুলি আপনার নিবন্ধ বা ব্লগের পোস্ট সরাসরি কোনও লিঙ্ক সন্নিবেশ করার অনুমতি দেয়। 

আর্টিকেল সাবমিশন করার কয়েকটি সুবিধা:

  • আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটে ব্যাকলিঙ্কগুলি তৈরি করতে সহায়তা করতে পারে।
  • ভাল মানের নিবন্ধ জমা দেওয়ার ফলে আপনার ওয়েবসাইটে ট্রাফিক বাড়তে পারে।
  • একটি নিবন্ধ যা সামগ্রী সমৃদ্ধ এবং প্রাসঙ্গিক এমন সম্ভাব্য গ্রাহকদের আস্থা তৈরি করতে সহায়তা করতে পারে যারা আপনার ওয়েবসাইটে ডাইভার্ট হতে পারে।
  • আপনার ওয়েবসাইটের প্রচারের একটি অন্যতম উপায়।

জনপ্রিয় আর্টিকেল সামমিশ সাইট:

  1. http://www.brighthub.com/
  2. http://hubpages.com/
  3. https://www.thefreelibrary.com/
  4. seekingalpha.com
  5. ehow.com/
  6. http://ezinearticles.com

. অফ পেজ এসইও-Video Submission:

ভিডিও মার্কেটিং অফ-পেইজ এসইও অপ্টিমাইজেশনের জন্য একটি দুর্দান্ত কৌশল কারণ এটি আপনার ওয়েবসাইটকে পরিচিতির পাশাপাশি প্রচুর পরিমানে ট্রাফিক প্রদান করতে সক্ষম। 

একটি সঠিক শিরোনাম, বিবরণ, ট্যাগ এবং রেফারেন্স লিঙ্ক দিয়ে জনপ্রিয় ভিডিও সাইটগুলিতে আপনার কন্টেন্ট আপলোড করুন। এত আপনি আপনার ওয়েসাইটের জন্য ভালোমানের ব্যাকলিঙ্ক পাবেন। 

জনপ্রিয় ভিডিও মার্কেটিং সাইটগুলি:

  1. https://www.youtube.com/
  2. https://vimeo.com/
  3. https://www.metacafe.com/
  4. https://vine.co/
  5. https://www.dailymotion.com/in
  6. Facebook Watch
  7. Periscope




১০. Web2.0 Submission অফ পেজ এসইও এর গুরুত্বপূর্ণ পার্ট:

এটি খুবই একটি জনপ্রিয় মাধ্যম আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করার, কিছু হাই কোয়ালিটি ডোমেন কর্তৃপক্ষের ওয়েবসাইটে সাব ডোমেন তৈরি করে আপনি আপনার ওয়েসাইটের কন্টেন্ট পোস্ট করতে পারবেন।

কিছু জনপ্রিয় Web2.0 Submission:

  1. medium.com
  2. tumbler
  3. blogger
  4. WordPress

১১. Email Marketing:

ইমেইল মার্কেটিং অফ পেজ এসইও এর একটি গুরুত্বপূর্ণ টেকনিক। আপনার শ্রোতাদের আপনার পণ্য, পরিষেবা এবং বর্তমান অফার সম্পর্কে জানাতে এটি একটি সহজ এবং কার্যকর মাধ্যম। সাইন আপ ফর্ম তৈরি করে আপনি আপনার ভিজিটরদের নেইম ও ইমেইল সংগ্রহ করুন। পরবর্তীতে এই ইমেইলগুলি ব্যবহার করে আপনার ওয়েবসাইটের মার্কেটিং করুন, এভাবে আপনি আপনার সাইটে ট্রাফিক বৃদ্ধি করতে পারনে। বর্তমান সময়ে ইমেইল মার্কেটিং অনেক জনপ্রিয়তা পাচ্ছে।




অফপেজ এসইও জন্য কম্পিটিটর Analysis গুরুত্বপূর্ণ:

আপনার ওয়েবসাইটের ওফ পেজ এসইও কৌশল সঠিকভাবে করতে হলে আপনাকে আপনার কম্পিটিটর Analysis করতে হবে। Analysis বলতে আপনার কম্পিটিটরের ব্যাকলিঙ্ক ও কীওয়ার্ড পরীক্ষা বা বিশ্লেষণ করা। এই বিশ্লেষণ সঠিকভাবে করার জন্য কিছু টুল ব্যবহার করা লাগে, সেগুলো হলো:

এই সবগুলোর যেকোনো একটির প্রিমিয়াম ভার্সন ব্যবহার করে আপনি খুব সহজেই আপনি আপনার কম্পিটিটরের ওয়েবসাইট Analysis করতে পারবেন।

SEO কারার ক্ষেত্রে অফ পেজ এসইও কে আপনি বাদ দিতে পারবেন না। যদি ভালো কিছু করতে চান আপনার ওয়েবসাইট দিয়ে তাহলে অফ পেজ এসইও এর বিকল্প নাই। আপনার Off Page SEO করার জন্য সঠিক পরিকল্পনা করুন এবং ধীরে ধীরে সব প্লান কার্যকরী করুন। দেখবেন কিছু সময়ের পর আপনার কাজগুলো ফলাফল দিচ্ছে।

TAGS: