Loading

চলিত রীতির বৈশিষ্ট্য কি কি | চলিত রীতি সম্পর্কিত প্রশ্ন ও উত্তর?

চলিত রীতির বৈশিষ্ট্য কি কি | চলিত রীতি…

চলিত ভাষা কাকে বলে? নির্দিষ্ট অঞ্চলে একটি নির্দিষ্ট এলাকার শিক্ষিত ও শিষ্টজনের মৌখিক ভাষাকে মান ধরে চলিত ভাষা হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়। অর্থাৎ বিভিন্ন অঞ্চলের উপভাষার কথ্য রীতি সমন্বয়ে শিষ্টজনের ব্যবহৃত এই ভাষাই আদর্শ চলিত…

সাধু রীতির বৈশিষ্ট্য কি কি | সাধু রীতি সম্পর্কিত প্রশ্ন ও উত্তর?

সাধু রীতির বৈশিষ্ট্য কি কি | সাধু রীতি…

সাধু ভাষার ব্যাকরণের নিয়ম অনেকটা সুনির্ধারিত এবং এর পদবিন্যাস সুনিয়ন্ত্রিত ও সুনির্দিষ্ট অনুকরণে পরিকল্পিত যে নতুন সর্বজনীন গদ্যরীতি বাংলা সাহিত্যে প্রবর্তিত হয়, তাকে সাধু ভাষা বলে। ‘সাধারণত গদ্য সাহিত্যে ব্যবহূত বাঙালা ভাষাকে সাধু ভাষা বলে।’…

বাংলা ব্যাকরণ কাকে বলে? এর ইতিহাস ও বিস্তরিত আলোচনা

বাংলা ব্যাকরণ কাকে বলে? এর ইতিহাস ও বিস্তরিত…

ব্যাকরণটি এমন একটি উপায় যা বাক্য তৈরির জন্য শব্দগুলিকে একসাথে যুক্ত করা। অর্থাৎ ব্যাকরণ একটি কাঠামোগত নিয়ম বা সেট যা একটি প্রাকৃতিক ভাষায় ধারা, বাক্যাংশ এবং শব্দের সমন্বয়কে পরিচালনা করে। প্রত্যেক ভাষারই চারটি মেীলিক অংশ…

সর্ব প্রথম কোন চীনা পরিব্রাজক ভারতবর্ষে আগমন করেছিলেন?

বাংলা সাহিত্যের ছন্দ নিয়ে যত প্রশ্ন ও উত্তর

ছন্দের কতিপয় সঙ্গা সমূহ একসাথেঃ ১. অমূল্যধন মুখোপাধ্যায়ের মতে ছন্দ হলোঃ পদ বিন্যাস করিলে বাক্য শ্রুতিমধুর হয় এবং মনে রসের সঞ্চার হয়, তাহাকে ছন্দ বলে। ২. ড.সুনীতিকুমার চট্টপাধ্যায়ের মতে ছন্দ হলোঃ বাক্যস্থিত পদগুলোকে যেভাবে সাজাইলে…