প্রাকৃতিক ভূগোল কাকে বলে বা প্রাকৃতিক ভূগোল বলতে কি বুঝায় ব্যাখ্যা কর?

প্রাকৃতিক ভূগোল কাকে বলে
  • Save

প্রাকৃতিক ভূগোল কাকে বলে?

ভূগোলের যে শাখায় পৃথিবীর জন্ম, ভূ-প্রকৃতি, ভূ-ত্বক, পাহাড়, পর্বত, মরুভূমি, সমভূমি, বায়ুমন্ডল ও বারিমন্ডল ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত বর্ণনা করা হয় তাকে প্রাকৃতিক ভূগোল বলে।

Professor Carl Ritter এর মতে, “প্রাকৃতিক ভূগোল হচ্ছে বিজ্ঞানের সেই শাখা যা পৃথিবীর সমস্ত অবয়ব, বৈচিত্র্য ও সম্পর্কসহ একটি স্বতন্ত্র একক হিসেবে বিচার করে”।

Professor Richard Hartshorne এর মতে, “ভূ-পৃষ্ঠের পরিবর্তনশীল বৈশিষ্ট্যের সঠিক, সুবিন্যস্ত ও যুক্তিসঙ্গত বর্ণনা ও ব্যাখ্যা সরবরাহ করা প্রাকৃতিক ভূগোলের কাজ”।

প্রাকৃতিক ভূগোল বিশ্বের বিভিন্ন প্রাকৃতিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করে। যেমন: পৃথিবীর জন্ম থেকে শুরু করে সূর্যের সাথে পৃথিবীর মিথস্ক্রিয়া, ঋতু, বায়ুমণ্ডলের গঠন, বায়ুমণ্ডলীয় চাপ এবং বায়ু, ঝড় এবং জলবায়ু ব্যাঘাত, জলবায়ু অঞ্চল, মাইক্রোক্লাইমেট, হাইড্রোলজিক চক্র, মাটি, নদী এবং স্রোত, উদ্ভিদ এবং প্রাণীজগত, আবহাওয়া, ক্ষয়, প্রাকৃতিক বিপদ, মরুভূমি, হিমবাহ এবং বরফের চাদর, উপকূলীয় ভূখণ্ড, বাস্তুতন্ত্র, ভূতাত্ত্বিক ব্যবস্থা ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যায় প্রাকৃতিক ভূগোল থেকে। 

প্রাকৃতিক ভূগোলের উপাদানসমূহ:

  1. সৌরজগৎ, অক্ষাংশ, দ্রাঘিমাংশ, আন্তর্জাতিক তারিখ রেখা।
  2. শিলার ধরণ, ভূ-তাত্বিক গঠন, মৃত্তিকা।
  3. সাগর, মহাসাগর, নদী, হ্রদ, হিমবাহ, বরফ, তুষার, ভূ-গর্ভস্থ পানি, বারিপাত, জোয়ার ভাাঁটা।
  4. উদ্ভিদ ও প্রাণি।

প্রাকৃতিক ভূগোল চারটি মন্ডলের উপদানসমূহকে ব্যাখ্যা ও বিশ্লেষণ করে। যথা:

  1. অশ্মমন্ডল
  2. বায়ুমন্ডল
  3. বারিমন্ডল
  4. জীবমন্ডল

প্রাকৃতিক ভূগোলের পরিধি ব্যাপক, যেমন:

  • ভূমিরূপবিদ্যা
  • জলবায়ুবিদ্যা
  • সমুদ্রবিদ্যা
  • মৃত্তিকা ভূগোল
  • জীব ভূগোল
  • প্রাণি ভূগোল
  • গাণিতিক ভূগোল

সুতরাং, প্রাকৃতিক ভূগোল হল পৃথিবীর পৃষ্ঠের অধ্যয়ন এবং একে অপরের সাথে তাদের মিথস্ক্রিয়া। এতে জলবায়ু, মহাসাগর, ভূমিরূপ এবং গাছপালা প্রভৃতি বিষয় অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। প্রাকুতিক ভূগোলবিদরা পৃথিবীর ঋতু, জলবায়ু, বায়ুমণ্ডল, মাটি, স্রোত, ভূমিরূপ এবং মহাসাগরগুলি অধ্যয়ন করে।

সহজ ভাষায় প্রাকৃতিক ভূগোল কাকে বলে?

প্রাকৃতিক ভূগোল হল পৃথিবীর ঋতু, জলবায়ু, বায়ুমণ্ডল, মাটি, স্রোত, ভূমিরূপ এবং মহাসাগরের অধ্যয়ন।

প্রাকৃতিক ভূগোলবিদরা কি করেন?

Physical geographers বা প্রাকৃতিক ভূগোলবিদরা একটি অঞ্চলের ভৌত দিকগুলি এবং কীভাবে তারা মানুষের সাথে সম্পর্কিত তা পরীক্ষা করে । তারা প্রাকৃতিক পরিবেশের বৈশিষ্ট্যগুলি অধ্যয়ন করে। যেমন: ভূমিরূপ, জলবায়ু, মাটি, প্রাকৃতিক বিপদ, জল এবং গাছপালা ইত্যাদি। অর্থাৎ একজন প্রাকৃতিক ভূগোলবিদ পৃথিবীর পৃষ্ঠ এবং প্রাকৃতিক ঘটনা অধ্যয়ন করেন। তিনি ভূখণ্ড, জল বন্টন, জলবায়ু নিদর্শন, বাস্তুতন্ত্র এবং জীবন্ত প্রাণীর মধ্যে সম্পর্কের মতো বিষয়গুলি দেখেন।

প্রাকৃতিক ভূগোল এর গুরুত্ব কি?

Physical-geography বা প্রাকৃতিক ভূগোল ভূমিরূপ, জলবায়ু, জলবিদ্যা, মৃত্তিকা এবং বাস্তুবিদ্যা,প্রাণি ও জীব ভূগোল, সেইসাথে তাদের মিথস্ক্রিয়া এবং ভবিষ্যতের প্রবণতাগুলির বৈশিষ্ট্য এবং গতিশীল প্রক্রিয়াগুলি অধ্যয়ন করে। ভূগোল আমাদের দৈনন্দিন জীবনকে প্রভাবিত করে এমন মৌলিক শারীরিক সিস্টেমগুলি বুঝতে সাহায্য করে। কীভাবে জল চক্র এবং সমুদ্রের স্রোত কাজ করে সবই ভূগোল দিয়ে ব্যাখ্যা করা হয়েছে। দুর্যোগের প্রভাব কমাতে সাহায্য করার জন্য এইগুলি পর্যবেক্ষণ করা গুরুত্বপূর্ণ।

আরো পড়ুন:

সামাজিক পরিবর্তন বলতে কি বুঝায় ব্যাখ্যা কর?

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.